ক্রীড়া ডেস্ক ::
মোহাম্মদ হাফিজ আর অবৈধ বোলিং অ্যাকশন যেন একসূত্রে গাঁথা। এই নিষিদ্ধ হন তো আবার সদর্পে ফিরে আসেন। ফের নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেলেন তিনি। নতুন পরীক্ষায় তার বোলিংয়ে কোনো ত্রুটি ধরা পড়েনি।

গেল আগস্টে হাফিজের বোলিংয়ে নতুন করে সমস্যা খুঁজে পাওয়া যায়। ইংলিশ ভাইটালিটি ব্লাস্টে মিডলসেক্সের হয়ে খেলছিলেন তিনি। সমারসেটের বিপক্ষে বোলিং করার সময় তার অ্যাকশন নিয়ে আপত্তি তোলেন আম্পায়াররা। পরে লাফবোরো বিশ্ববিদ্যালয়ে ল্যাব টেস্ট করা হয়। তাতে ত্রুটি ধরা পড়ে।
হাফিজ নিজেও সেই রিপোর্ট নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না। তাতে দেখা যায়, অফব্রেকের সময় তার কনুই ১৫ ডিগ্রির বেশি বেঁকে যায়। পরে আপিল করেন তিনি। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। অ্যাকশন বৈধ না হওয়ায় তাকে কাউন্টি ক্রিকেটে বোলিংয়ে নিষিদ্ধ করে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) রিভিউ কমিটি। তবে জানানো হয়, অ্যাকশন শুধরে পুনরায় বোলিংয়ে ফিরতে পারবেন তিনি।

অবশেষে লাফবোরো বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং লাহোরে আইসিসির টেস্টিং সেন্টারের মূল্যায়ন পরীক্ষায় পাস করেছেন হাফিজ। ফলে তার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে। এখন থেকে ইংল্যান্ডে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় বল করতে পারবেন তিনি। পাকিস্তানের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫৫ টেস্ট, ২১৮ ওয়ানডে ও ৯১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ৩৯ বছর বয়সী ক্রিকেটার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে